চিরসবুজ জলপাই

নানাভাবে জলপাই খাওয়া যায়। জলপাইয়ে খাদ্যশক্তিও বেশ কিছু ফলের চেয়ে বেশি আছে বলে বিষেজ্ঞরা জানান। জলপাইয়ে খনিজ পদার্থের পরিমান অনেক ফলের চেয়ে বেশি থাকে। জলপাইয়ে আয়রণ ও ক্যালসিয়ামের পরিমান পাকা আম, পাকা পেঁপে, আনারস, পেয়ারা, লিচু, বরই, তরমুজ, কামরাঙ্গা, জাম্বুরা, বাঙি, বেল, আমলকি, আপেল, এবং আঙ্গুরের চেয়ে বেশি। এই ফলে রয়েছে উচ্চমানের ভিটামিন-সি, ভিটামিন-এ, ভিটামিন-ই। এই ভিটামিন গুলো দেহের রোগজীবাণু ধ্বংস করে, উচ্চরক্তচাপ কমায়, রক্তে চর্বি জমে যাওয়ার প্রবণতা কমিয়ে হৃৎপিন্ডের রক্তপ্রবাহ ভালো রাখে। হৃৎপিন্ড থেকে অধিক পরিশোধিত রক্ত মস্তিষ্কে পৌছায়, মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়ে। ত্বকের কাটাছেড়া দ্রুত শুকাতে সাহায্য করে। উচ্চরক্তচাপ ও রক্তে চিনির পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে এর রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। সেদ্ধ জলপাইয়ের চেয়ে কাচা জলপাইয়ের পুষ্টিমূল্য অধিক। এই ফলের আয়রন রক্তের আরবিসির কর্মশক্তি বৃদ্ধি করে। জলপাইয়ের খোসায় রয়েছে আঁশজাতীয় উপাদান। এই আঁশ কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে, ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়, কোলনের পাকস্থলীর ক্যান্সার দূর করতে রাখে অগ্রণী ভূমিকা। Continue reading

Advertisements

চীনের রেশমী পোকা চাষের পদ্ধতি কিভাবে জানাজানি হয়…………………

কথিত আছে , পাঁচ হাজার বছর আগে চীনের সম্রাট হুয়াংয়ের পত্নী লুও জু প্রজাদের রেশমী পোকা চাষের পদ্ধতি শিখিয়েছিলেন । চীনের কচ্ছপের খোলের উপরে খোদিত যে চীনা শব্দগুলো আবিস্কৃত হয়েছে সেগুলোর মধ্যে তুঁত, রেশমী গুটি, রেশমী সুতো এবং রেশমী কাপড় প্রভৃতি শব্দ ছিল । জুলাই মাস শীর্ষক চীনের প্রথম কাব্য সংকলন “ কাব্য গ্রন্থ”এর একটি কবিতায় বলা হয়েছে : বসন্তের সুর্য্য উঠেছে , কোকিল গান গাইছে , গ্রামের মেয়েরা তুঁতের কচি পাতা সংগ্রহের জন্য হাতে ঝুলি নিয়ে মেঠো পথে হাঁটছে ।এই কবিতা পড়ে জানা যায় যে , প্রাচীনকালে চীনারা রেশমী পোকা চাষ,রেশমী সুতো তোলা এবং রেশমী কাপড় বোনার কৌশল আয়ত্ত করেছিলেন Continue reading

সিল্ক……………… রেশম পোকা…

কথিত আছে, খ্রিষ্ট জন্মের প্রায় ২০০০ বছর আগে চীন দেশে সর্বপ্রথম রেশম সুতা আবিস্কৃত হয়। এরপর প্রায় দুই থেকে আড়াই হাজার বছর পর্যন্ত চীনারা একচেটিয়াভাবে অত্যন্ত গোপনীয়নতার সাথে রেশমী সুতা ও রেশমী কাপড় তৈরি করত। খ্রিষ্টের জন্মের প্রায় সাড়ে পাঁচশত বছর পর দুজন ইউরোপীয় পাদ্রী চুরি করে রেশম উৎপাদনের কৌশল শিখে নেন। এবং ইউরোপে কিছু রেশম পোকার ডিম ও তুঁত গাছের বীজ নিয়ে এসে রেশম চাষ শুরু করেন। Continue reading

ভূমিকম্প ও বাংলাদেশ

ভূমিকম্প কী?

পৃথিবীর অভ্যন্তরে বিভিন্ন প্লেটের মাঝে দিন দিন প্রচুর শক্তি সঞ্চিত হচ্ছে। এই শক্তির হঠাৎ অবমুক্তিতে পৃথিবীর ভূমিতে এক ধরনের কাঁপুনির সৃষ্টি হয় যা সিস্মিক তরঙ্গ নামে পরিচিত। এই কম্পনের নামই ভূমিকম্প।

ভূমিকম্প কেন হয়? Continue reading

Hello world!

আমি মাসুম বিল্লাহ সাগর।

আমি বর্তমানে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে পড়াশুনা করছি। ভাল লাগে লেখালিখা করতে,  বই পড়তে ……………………………………

ছোটবেলায়  স্বপ্ন ছিল অনেক কিছু হওয়ার……………………….কিন্তু এখন…………………………ভবিষ্যতের স্বপ্ন  ব্যবসায়ী হওয়ার……………..

This slideshow requires JavaScript.